আসুন জেনে নেই টুইটার মার্কেটিং কেন করতে হয় এবং কিভাবে করবেন

টুইটার মার্কেটিং

আজকাল, আমরা অনলাইনে সবার সাথে যোগাযোগ রাখি। সোশ্যাল মিডিয়ায় যোগাযোগের সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম হল টুইটার। উন্নত দেশে সবাই এই সোশ্যাল মিডিয়াকে খুব পছন্দ করে এবং সক্রিয় থাকে। আজকাল, সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এবং পণ্য পরিচিতির জন্য টুইটার বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এজন্যই আজ আমরা আলোচনা করবো কেন আপনার টুইটার মার্কেটিং দরকার এবং কিভাবে এটি করতে হবে।

টুইটার মার্কেটিং কেন?

আজকাল, অনলাইনে কেনা বেচা অনেক বেশি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। সোশ্যাল মিডিয়া এই জনপ্রিয়তার পিছনে প্রধান কারণ। আপনি সোশ্যাল মিডিয়ায় বিনামূল্যে বিজ্ঞাপন এবং প্রিমিয়াম বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে গ্রাহকের কাছে পণ্যটি দ্রুত উপস্থাপন করতে পারেন। এবং টুইটারে হ্যাশট্যাগ গবেষণা করে, আপনি বিনামূল্যে এই পদ্ধতিতে গ্রাহকের কাছে আপনার পরিষেবা বা পণ্য পরিচয় করিয়ে দিতে পারেন। আপনি টুইটারে হ্যাশট্যাগ গবেষণার মাধ্যমে নিয়মগুলো সঠিকভাবে অনুসরণ করতে পারলে আপনি অন্য কারো মতো সফল হতে পারেন। আসুন টুইটার মার্কেটিং এর সঠিক নিয়মগুলো জানার চেষ্টা করি।

আমি কিভাবে শুরু করব?

প্রথমে, আপনাকে সঠিক তথ্য সহ একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। অ্যাকাউন্ট খোলার পর নাম, ছবি, শিরোনাম, বর্ণনা সুন্দরভাবে দিন। একাউন্টে দেওয়া কোন তথ্য দেখলে মনে হয় না এটা ভুয়া। আপনার মার্কেটিং ক্যারিয়ার সফল হবে না যদি আপনি মনে করেন অ্যাকাউন্টটি ভুয়া। এজন্য একাউন্ট বাছাইয়ে বিশেষ মনোযোগ দেওয়া অপরিহার্য।

কিভাবে মার্কেটিং করবেন?

একবার আপনার অ্যাকাউন্ট সঠিকভাবে সাজানো হলে, আপনি বিপণনের জন্য প্রস্তুত। অনুসরণ করা বিশিষ্ট ব্যক্তিদের অনুসরণ অনুরোধ পাঠানো (অ্যাকাউন্টটি জাল কিনা তা পরীক্ষা করে দেখুন)। প্রতিদিন আপনি পনের থেকে বিশ জনকে অনুরোধ পাঠাবেন। যদি আপনি নীচের অনুরোধটি নীচের বাইরে পাঠান তবে অ্যাকাউন্টটি স্প্যামিংয়ের কারণে স্থগিত করা হবে। তাই স্প্যামিং থেকে দূরে থাকুন এবং অ্যাকাউন্টটি সুস্থ রাখুন।

হ্যাশট্যাগ কি করে?

আমাদের পরিষেবা, পণ্য এবং পরিষেবা গ্রাহকের কাছে পৌঁছানোর জন্য আমাদের অবস্থান অনুযায়ী ক্লায়েন্ট খুঁজে বের করতে হবে। আমাদের টার্গেটেড গ্রাহকদের ট্রেন্ডিং হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করতে হবে। আমি কীভাবে ট্রেন্ডিং হ্যাশট্যাগটি সঠিকভাবে খুঁজে পেতে পারি তা নীচে বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করছি।

১ / প্রথমে, আপনাকে একটি ওয়েবসাইট খুঁজে বের করতে হবে যা একটি আন্তর্জাতিক সর্ব-দেশ সঠিক সময় দেখাবে। আপনি যখন পোস্ট করতে চান তখন আপনার গ্রাহক সক্রিয় না থাকলে আপনি কোন ফলাফল পাবেন না। এজন্য আমাদের সেই দেশের সময় অনুযায়ী বাজারজাত করতে হবে। সে দেশের মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশি সক্রিয় থাকবে। আপনার সেই সময়ে হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে পোস্ট করা উচিত। আপনি অল্প সময়ে সফল হতে পারেন।

২/ আপনি প্রথমে এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন (শব্দ সময় এবং তারিখ), তারপর আমরা সেটিং করব। সুতরাং আসুন একটি সময় এবং তারিখ ওয়েবসাইট সেট আপ,

৩/ ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পরে, আপনি নীচের স্ক্রিনশট দেখতে পারেন এবং সময় এবং তারিখ সেট করতে পারেন।

twitter marketing

৪/ যদি আপনি প্রতিটি দেশে বর্তমান দিন বা রাত জানতে চান, এই সেটিং সেট করুন।

twitter marketing

৫/ এখন, সমস্ত দেশে বর্তমান দিন এবং সময় দেখুন। এখন আপনি আপনার টার্গেট দেশ অনুযায়ী হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে বাজারজাত করতে পারেন। অবশ্যই, যদি আপনার টার্গেট দেশের নাগরিকরা সক্রিয় না হয়, তাহলে আপনার প্রচেষ্টা কোন কাজে আসবে না।

twitter marketing

৬/ তারপর আপনার টুইটার অ্যাকাউন্টে লগ ইন করুন। তারপরে আমার দেওয়া স্ক্রিনশটটি দেখুন এবং সে অনুযায়ী এগিয়ে যান।

twitter marketing

৭/ এখন আপনার টার্গেটেড লোকেশন সিলেক্ট করুন এবং ট্রেন্ডিং হ্যাশট্যাগ বের করুন। এখান থেকে, আপনি (#) চিহ্ন দেখতে পাবেন। আপনার পোস্টে সেগুলো ব্যবহার করুন।

twitter marketing

👉 আমি আজকের মত এখানে বিদায় নিচ্ছি। এই পোস্ট সম্পর্কে আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে, দয়া করে মন্তব্য করুন। পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করতে ভুলবেন না এবং আমাদের ব্লগের সাথেই থাকুন 🙂

1 Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Previous Story

অল্প সময়ে সুস্বাদু গ্রিলড চিকেন রেসিপি কিভাবে বানাবেন

Next Story

নারকেল তেলের যে পাঁচটি গুন আপনার চুলের সমস্যার সমাধান করতে পারে