সুস্থ্য থাকার জন্য আমাদের কতটুকু পানি পান করা প্রয়োজন?

সুস্থ্য থাকার জন্য

আমরা সবাই জানি পানির অপর নাম জীবন। কিন্তু পানি শুধু জীবন বাঁচাতে সাহায্য করে না, এর অনেক উপকারিতা রয়েছে। পানি শরীরের ওজন কমাতে খুবই কার্যকরী, কিন্তু অতিরিক্ত পানি পান করলে ক্ষতি হতে পারে। একজন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের কাছ থেকে জেনে নিন সুস্থ্য থাকার জন্য প্রতিদিন কত লিটার পানি পান করতে হবে। এটি আপনাকে প্রতিদিন সঠিক পরিমাণে পানি পান করতে সাহায্য করবে।

কি ধরনের সমস্যা শরীরে পানির অভাব হতে পারে

আমরা সকলেই জানি যে আমাদের শরীরের 70 শতাংশ জল দ্বারা চালিত। কিন্তু আমাদের শরীর বেশিদিন পানি সংরক্ষণ করতে পারে না। এর কারণ হল আমাদের শরীর থেকে প্রতিদিন দুই থেকে আড়াই লিটার পানি ত্বক, ফুসফুস, অন্ত্র এবং কিডনির মাধ্যমে নির্গত হয়। এর ফলে মাথাব্যথা, মাথা ঘোরা, শুষ্ক ত্বক, বিক্ষেপ, ঘন ঘন প্রস্রাব ইত্যাদি হয় তাই এই পানির চাহিদা মেটাতে আমাদের সবাইকে নিয়ম মেনে চলতে হবে।

যেসব রোগীদের অতিরিক্ত পানি পান করা উচিত নয়

যারা উচ্চ রক্তচাপ এবং খুব দুর্বল হৃদয়ে ভুগছেন তাদের কম পানি খাওয়া উচিত। আর যাদের শরীরের বিভিন্ন টিস্যুতে পানি পাওয়া গেছে তারা পানি কম খাবে। বার্লিনের মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডা। মাইকেল বাসম্যান বলেন, তাদের উচিত একজন বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেওয়া এবং নিয়ম অনুযায়ী পানি পান করা।

বিশুদ্ধ পানি শরীরকে সুস্থ ও সক্রিয় রাখতে সাহায্য করে

সুস্থ জীবন যাপনের জন্য আমাদের প্রত্যেকেরই পর্যাপ্ত বিশুদ্ধ পানি পান করা প্রয়োজন। পানির কাজ শুধু তৃষ্ণা মেটাতে নয়, এর অনেক উপকারিতাও রয়েছে। এই ধরনের জল শরীরকে সুস্থ ও সক্রিয় রাখতে সাহায্য করে। জল অ্যালকোহল এবং ক্যালোরি ছাড়া তরল খাবার যা আমাদের ক্ষতি করে না এবং সহজে হজম করা যায়। প্রস্রাবের মাধ্যমে পানি আমাদের শরীর থেকে ক্ষতিকর পদার্থ বের করে দেয় যাতে আমরা বিভিন্ন রোগ থেকে রক্ষা পেতে পারি।

পানি শরীরের অতিরিক্ত ওজন কমাতে সাহায্য করে

বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা বলেছেন যে যারা অতিরিক্ত ওজনের এবং স্থূল তাদের খাবারের আগে আধা লিটার পানি পান করা উচিত। কারণ পানীয় জল আমাদের অতিরিক্ত খাবার খাওয়া থেকে বিরত রাখে। এই নিয়ম মেনে চললে প্রতি সপ্তাহে 1 কেজি পর্যন্ত ওজন কমে যেতে পারে। প্রতিদিন সঠিক উপায়ে পানি পান করলে শরীরের অতিরিক্ত মেদ কমে। এটি আপনার স্বাস্থ্য ভালো এবং সুন্দর রাখবে।

গরমে শরীর ঠান্ডা রাখতে এবং শীতকালে গরম রাখতে পানি পান করুন

আপনি এটা শুনে অবাক হতে পারেন, কিন্তু আমাদের শরীরের তাপমাত্রা বজায় রাখার ক্ষেত্রে পানির ভূমিকা সত্যিই অপরিসীম। আমাদের শরীরের তাপমাত্রা ঠিক রাখার জন্য শরীরের ভিতরে যে রাসায়নিক বিক্রিয়া ঘটে তা সঠিকভাবে কাজ করার জন্য প্রচুর পানির প্রয়োজন হয়। অতিরিক্ত তাপ আমাদের শরীর থেকে ঘামের মাধ্যমে পানি বের করে দেয়। শরীর তখন দুর্বল এবং নিস্তেজ এবং গরম হয়ে যায়। সেই সময়ে, আমাদের পর্যাপ্ত পানি পান করা উচিত কারণ এটি শরীরের তাপমাত্রা কমাবে এবং শরীরের পানির চাহিদা পূরণ করবে।

শীতকালে আমাদের ত্বক শুষ্ক ও রুক্ষ হয়ে যায়। এর কারণ হল আমরা শীতকালে পানির পরিমাণ কমিয়ে দেই যাতে আমাদের শরীর ঠান্ডা অনুভব করে। কারণ শরীরের তাপমাত্রা ঠিক রাখতে পানির ভূমিকা অনেক বেশি। যদি পানি পান করার কারণে শরীরে রাসায়নিক বিক্রিয়া সঠিকভাবে চলতে থাকে তাহলে শরীর কম ঠান্ডা অনুভব করবে এবং ত্বকের শুষ্কতা ও রুক্ষতার অনুভূতি কমে যাবে। এতে শীতে ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা থেকে মুক্তি মিলবে। তাই পানি গরম হলেও, আপনাকে সঠিক পরিমাণে পানি পান করতে হবে।

সাধারণ পানি পান করুন কিন্তু কোমল পানীয় নয়

কোমল পানীয় পান করা কখনই আপনার স্বাস্থ্যের জন্য ভালো নয়। এটি কিডনি এবং লিভারের মারাত্মক ক্ষতি করতে পারে। এই কোমল পানীয়গুলিতে ক্যালোরি বেশি এবং এনার্জি ড্রিঙ্কসে অ্যালকোহল বেশি। যা আমাদের দেহের জন্য ক্ষতিকর তাই আমাদের সবসময় সরল পানি পান করা উচিত। শরীরকে সুস্থ ও সুস্থ রাখা সম্ভব হবে।

তাই ভ্রমণ বা কোথাও যাওয়ার সময় আপনার সাথে পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি রাখুন। প্রতিদিন বিশুদ্ধ পানি পান করুন এবং সুস্থ ও সবল থাকুন।

রেফারেন্সঃ

bbc.com

banglanews24.com

bangla.bdnews24.com

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Previous Story

জেনে নিন প্রতিদিন শারীরিক ব্যায়াম করলে কী কী উপকার পাওয়া যায়

Next Story

আমাদের কী ধরনের সমস্যা হতে পারে খাদ্য বিষক্রিয়া এর কারণে?